আমিও আজ দোষী

2

একদিন সবাই মিলে আমাকে দোষী ঘোষনা করলো,
তখন আমি অট্টহাসি হাসলাম নীরবে।
আমি নাকি সবাইকে বেমালুম ভুলে গেছি,
আমি নাকি আরাম প্রিয় হয়ে গেছি।

তাদের ঘোর এই অভিমানে,
করেছে আমাকে অভিযোগ
দেওয়া হয়নি আমাকে কোনো সুযোগ
তাইতো সবার চাওয়াতে আমাকে দেওয়া হলো মৃত্যুদন্ড ।

আজ আমাকে আর কেউ চায় না ,
আমার সকল কিছু আজ ওরা কেড়ে নিবে বলছিলো
আমার জন্য কিছুই নাকি পরে রবে না ।
আমার কাছে যা ছিল একে একে সব নিয়ে নিলো
আর কিছুই রইলো না আমার কাছে

আর কিছু না পেয়ে সবাই বললো,
“আমার নাকি একটা বুকের খাঁচা আছে
যেখানেতে একটা হৃদয় থাকে
ওরা সেই বুকের খাঁচা টাও আমার কাছে ছিনিয়ে নিতে চায়
কিন্তু আমি দেই নি করেছি প্রতিবাদ
ওরা তো জানেনা এই বুকের খাঁচায়ই লুকিয়ে রেখেছি আমি কিছু বিরহ কিছু অভিমান ।
এই বুকের খাঁচায় আছে একটা আকাশ, একটা নদী
ঐ বুকের খাঁচায় আছে মায়ের আদর, বাবার শাসন,
ঐ খানেই আজ আছে একাকীত্ব, আর সব কিছু ।

ওরা আজ শুনেনি আমার কথা
ওরা টুকরো টুকরো করেছে এই বুকের খাঁচা
রক্তে দিয়েছে ভেসে
ওরা দেখেনি আমার সেই বুকের খাঁচার ক্ষত
আমার কষ্টে ওরা হাসছে যে বড় ।

আমার নিশ্বাস হচ্ছিলো ভারি
হয়তো এখনি চলে যেতে পারি

আর সহ্য করতে না পেরে
আমি এবার অট্টহাসি দিয়ে চিৎকার করে বলি,
“ভালোবাসার মৃত্যু হয়না,
তোমাদের আমি ভুলিনি আর ভুলবোও না ।
আস্তে আস্তে শেষ হয়ে গেলো একটা বিরহের আর অভিমানের
স্লোগান ।

2
(Visited 43 times, 2 visits today)

Orpita Oyshorjo

Author: Orpita Oyshorjo

লিখতে ভালো লাগে তাই লিখি সবসময় গল্প কিংবা কবিতা যাই পাই তাই লিখি

Related Posts

শান্তি

অনেক আগে লীগ অব নেশনস্ দূর করতে চেয়েছিলো টেনশান। কিন্তু, তারপরেও দেখেছিলো বিশ্ব জাপানের হিরোশিমা আর নাগাসাকির দৃশ্য। তারপর ১৯৪৫

আমায় মোনাজাতে রাখিয়

  চলার পথে অনেকেই হারিয়েছি বলার মতন নয় জানি না কোনদিন তাদের মত হারিয়ে যাব পার যুদি মোনাজাতে আমায় সরণ

একুশ আমার খুশি

একুশ আমার খুশি একশে দিন ভাষার মাসে ছন্দ জাগে বাংলা ভাষা অতি মিষ্টি কী যে করুণ লোহু সৃষ্টি শ্রদ্ধা মেখে

শুভ্র ভালোবাসা

মুগ্ধ দ্যুতি মনটা ঘোরে সুবাস ঝিলে সূর্য হলে জ্বলবে তুমি গাত্র হবে শীতল ভূমি ইচ্ছে হলে ঘুরতে যাব চরণ বিলে।

Leave a Reply