কপালকুণ্ডলা ওড়িশা

হায় প্রিয়! কি মন্ত্র মাখিয়াছে তব চাহনি!
ভুলিতে পারিনা যে অদৃশ্য তব মুখ খানি !

যে আঁখিতে চাহিলে মম বিজলিয়া চমকায়,
এই হৃদয় মম শুধু তব পানেই চায় !

কাঁড়িয়াছো এই মম নজর, কাঁড়িয়াছো মম রাত্রি ঘুম,
অন্তরে বাঁজিছে আনন্দ তোমায় লভিবার ধুম !

সংযম-সংবরণে চলিছে না মোর এ প্রাণমন
মানিছে না সংস্কার বাঁধা, হৃদয় যুদ্ধ সংকীরণ!

কাছেতে আসিলে ভাসী উচ্ছল আনন্দ জোয়ারে
এক পলক না দেখিলে ডুবি তীমির আঁধারে !

তব চরণ পরশে মরা পথও জিন্দায় জাগে,
সৌষ্ঠব নিতম্ব, পদযুগল নৃত্য করে ময়ূর ঢঙে।

তব হাসিতে রবিশশী রোশনী ঝরে, সরোবরে হাসে কুমুদ-নী !
পক্ষীকূলের কলকাকলিতে মাতাল বয় সমীরণ, সাগর জোয়ারি !

বিষাদে নামিয়া আনো মলিন বদনে কালো অমানিশা যেন জগৎ জুড়ি!

ভগ্ন এই হৃদয় শুধুই ঝরে খুন, চতুর্থত শোকছাঁয়ায় উঠে ভরি ।

ক্রোধে তব রক্তিম-বদন শিল্পীর তুলিতে ঊষার আবীর প্রভা,
চুম্বনে যেন ওষ্ঠদ্বয়ে গোধূলীর রাঙ্গা রবির লালিমার আভা ।

স্বর্ণোজ্জ্বল তব চাঁদবদনে ভূ-লুটে গগনের পূর্ণশশী !
ভ্রমে পথভ্রষ্ট প্রেম-পথিক কতজনা স্বপ্ন-ভ্রমেই ভাসী !

উতলা এ হিদয় মম ভাবিছে, কেমনে লভি চিরতর তোমায়,
চাহনিরহস্যের চাতুরি কেন, রাখিছো কি মোরে তব ভাবনায় ?

তোমা বিহনে, এ ভুবনে হায় মরিতে নাহি চাই, যদি ভাগ্যে জুটো তাই ।।

(Visited 7 times, 1 visits today)
0
likeheartlaughterwowsadangry
0

Related Posts

প্রার্থনা

প্রভু, আমায় দাও " বায়োনিক ওম্যান" এর ন্যায় শক্তিধর বায়োনিক কান, যেন শুনতে পাই অসহায় নির্যাতিতের তাৎক্ষণিক আর্তি, আকাশ বাতাস

আকাশ…….

কাব্যের শুরু এখানে কাব্যের শেষ এখানেই অজস্র ভালোবাসা এখানে অজস্র কান্নাও এখানেই শব্দের পরে শব্দ আর ছবির পরে ছবি শিল্প

এলোমেলো…..

কখনও খুজেছো আধারের শেষ কোথায় ভেবে দেখেছো আলোর সীমানার সমাপ্তি চোখের গভীরের জল কি পারবে মেপে দেখাতে ? পেয়েছো কি

শ্রমিকের পক্ষে

ও সে অশেষ বিহনে রঙ্গ দহনে ছাই তোদের নিয়তি, অক্ষির সমক্ষে দেখিতাম তোরা ক্লান্তির অত্যাচার কে উপেক্ষা করিয়া দাঁড় বাইতি।

Leave a Reply