খুকীর আবদার

0

চার বছরের খুকী ঘুমায়

মা’র গল্প শুনে–

ঘুমিয়ে পড়ে, স্বপ্ন দেখে

বাবাকে পড়ে মনে।

মাথার উপর মাঝ দেয়ালে

টাঙ্গানো বাবার ছবি

মা বলেন- ‘সে মস্ত মানুষ

তা-র মতন হবি?’

কোথায় আছে বাবা আমার

বলোনা একটি বার–

এনে দিলে তোমায় দেব

পুরো –পুতুলের সংসার।

খেলনা, জামা, গাড়ী, জুতো

সব নিয়ে যাও তুমি,

যেতে দিলে এক্ষুনি যাই

বাবার কাছে আমি।

চাই না চুড়ি, রঙিন ফুলে

যাবো না ঘরের বার,

একটি বার রাখ কেবল,

আমার এ আবদার।

সাথীর বাবা ব্যবসা করে

মস্ত বড় লোক,

বাবা আমার ফ্রেমে বাধা

কেমন মলিন মুখ!

আনু কেবল বিদেশ ঘোরে

ক-ত ছবি তোলে–

বাবার কাঁধে সফর করে

শীতের ছুটি এলে।

আমার ছুটি টিভি দেখে

মোবাইল গেমে কাটে,

মায়ের কোন নেই অবসর

ঘরে বাইরে ছুটে।

ছবির বাবা ভাল্লাগেনা

কেনই বা গেছে ফেলে?

আসলে পরে বলব তারে

কোথায় লুকিয়ে ছিলে?

ঘুমিয়ে রাতে স্বপ্নে দেখি

আমি বাবার কোলে–

জড়িয়ে গলা ঘুরে বেড়াই

ফিরি সন্ধ্যা হলে।

আমি যদি স্কুলে যাই

আর না তোমার সাথে–

শর্ত শুধু বাবা যাবে

ধরবে আমার হাতে।

মাঝে মাঝে আনমনা মা

যাই না তখন কাছে–

উদাস চোখে বাইরে দেখে

আঁচলে চোখ মুছে।

কি হয়েছে চুপ কেন গো

করেছ অভিমান?

বলবনা আর বাবার কথা

এই ধরেছি কান !

খুঁজবনা আর ছবির মানুষ

ভাববনা এসব আর

নামিয়ে ফেল ফ্রেমটা এবার

থাকব নির্বিকার।

বলব না আর বাবার কথা

খাবোনা তোমার হাতে–

তোমার সাথে অনেক হোল

এবার ঘুমাই বাবার সাথে।

খুকী দেখে চাঁদের পানে

ধূসর মেঘের কোলে–

হারিয়ে যাওয়া বাবার খুঁজে

বালিশ ভিজে জলে।

 

আরো পড়ুন-

0
(Visited 28 times, 1 visits today)

MD MOINUL ISLAM

Author: MD MOINUL ISLAM

Related Posts

শান্তি

অনেক আগে লীগ অব নেশনস্ দূর করতে চেয়েছিলো টেনশান। কিন্তু, তারপরেও দেখেছিলো বিশ্ব জাপানের হিরোশিমা আর নাগাসাকির দৃশ্য। তারপর ১৯৪৫

আমায় মোনাজাতে রাখিয়

  চলার পথে অনেকেই হারিয়েছি বলার মতন নয় জানি না কোনদিন তাদের মত হারিয়ে যাব পার যুদি মোনাজাতে আমায় সরণ

একুশ আমার খুশি

একুশ আমার খুশি একশে দিন ভাষার মাসে ছন্দ জাগে বাংলা ভাষা অতি মিষ্টি কী যে করুণ লোহু সৃষ্টি শ্রদ্ধা মেখে

শুভ্র ভালোবাসা

মুগ্ধ দ্যুতি মনটা ঘোরে সুবাস ঝিলে সূর্য হলে জ্বলবে তুমি গাত্র হবে শীতল ভূমি ইচ্ছে হলে ঘুরতে যাব চরণ বিলে।

Leave a Reply