ইউটিউব থেকে আয়

বাংলাদেশী চ্যানেলের জন্য সেরা ইউটিউব MCN কোনটি?

ইউটিউব MCN বলতে অনেকগুলো ইউটিউব চ্যানেলের একটি নেটওয়ার্ক বুঝায়। MCN শব্দের পূর্ণরূপ হচ্ছে Multi Channel Network. এগুলো অনেকগুলো ইউটিউব চ্যানেলকে যুক্ত করার কাজ করে। ইউটিউব সমর্থিত পদ্ধতিতে এই নেটওয়ার্কগুলো চ্যানেলের মালিকদের কিছু সুবিধা দেয় এবং বিনিময়ে তারা আয়ের কিছু অংশ নিয়েও যায়।

কিভাবে ইউটিউব MCN এ জয়েন করবো?

যদি আপনি কোন MCN এ জয়েন করতে চান তাহলে তাদের শর্ত পূরণ করতে হবে। আপনার চ্যানলে স্ট্রাইক থাকলে বা, ইউটিউব Monetization অন না করা থাকলে এগুলোতে জয়েন করা যায় না। ১০০০ সাবস্ক্রাইবার এবং বিগত ৩৬৫ দিনে  কমপক্ষে ৪০০০ ঘণ্টা ভিউ না থাকলে মনিটাইজেশন অন হয় না। এইসব চ্যানেল চাইলেও জয়েন করতে পারবে না। যারা অলরেডি গুগোল এডসেন্স এর হোস্টেড একাউন্টের মাধ্যমে চ্যানেলের ভিডিওগুলোতে এড দেখাচ্ছেন শুধু তারাই জয়েন করতে পারবেন।

বাংলাদেশীদের জন্য  সেরা MCN কোনটি?

অনেক দিন আগে দেখেছিলাম Yoola এবং Scalelab এর শর্তই শুধু বাংলাদেশীরা পূরণ করে ওদের কাছ থেকে টাকা পেতে পারে। বাংলাদেশী যাদের Payoneer একাউন্ট আছে তারা Payoneer এর মাধ্যমে পেমেন্ট নিতে পারবেন, সর্বনিম্ন ২০ ডলার হলেই ওরা টাকা দেবে।  Scalelab বেশ পুরনো এবং পরিচিত, ওদের সাথে যুক্ত হলে কিছু সুবিধা পাবেন। যা জানা জরুরি-

  • কিছু প্রিমিয়াম এপ ফ্রিতে ব্যবহার করতে পারবেন যা, আপনার চ্যানেলকে দ্রুত বেড়ে উঠতে সাহায্য করবে
  • Content ID পাবেন, যারা মাধ্যমে অন্য চ্যানেলে আপনার কষ্ট করে তৈরি করা ভিডিও আপলোড ঠেকাতে পারবেন, এবং তারা আপলোড করলেও টাকাটা আপনি পাবেন
  • ফোরামে বড় বড় ইউটিউবারদের কাছ থেকে সমস্যার সমাধান জেনে নিতে পারবেন
  • ওদের স্টুডিওতে গিয়ে ভিডিও তৈরির সুযোগ পাবেন
  • আপনার আয়ের একটা অংশ ওরা নিয়ে নেবে, এর বিনিময়ে এইসব সুবিধা দেবে। সেগুলো প্রয়োজন না হলে জয়েন করার দরকার নেই
  • MCN মনিটাইজেশন দেয় না, যাদের মনিটাইজেশন আছে তাদের সাহায্য করে। CPC বাড়তে পারে।

এইসব সুবিধা কাজে লাগাতে পারলে লাভবান হবেন, আর চুপচাপ বসে থাকলে আপনার আয়ের একটা অংশ ওদের দিয়ে আপনার লস হবে। প্রিমিয়াম এপ আর কনটেন্ট আইডির জন্য সবাই জয়েন করে এবং তাদের লাভটাই বেশী হয়-

Scalelab এ জয়েন করার লিংক

তাদেরকেই জয়েন করতে বলবো যাদের চ্যানেলে ভালো পরিমাণে সাবস্ক্রাইবার এবং ভিউ আছে সেই সাথে Monetization ও অন করা আছে। এপগুলো ব্যবহার করে সোশ্যাল শেয়ার, সাজেশন, সুন্দর আউট্রো বানানোর ফ্রেম এরকম কিছু জিনিস পাওয়া যাবে। অন্য দেশে ওদের স্টুডিওতে গিয়ে ভিডিও বানানোর সুযোগ পাওয়া যায়, বাংলাদেশে সেটা আপাতত সম্ভব না।

(Visited 5 times, 1 visits today)
0
likeheartlaughterwowsadangry
0

Related Posts

ইউটিউব কি

ইউটিউব কি- আশ্চর্যজনক হলেও অনেকেরই ভুল ধারণা আছে

ইউটিউব কি? ইউটিউব কি- একবাক্যে যদি এই প্রশ্নের উত্তর দিতে হয় তাহলে বলতে হবে এটি একটি অনলাইন ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম

বাংলা আর্টিকেল রাইটিং পেশা হতে পারে!

অনলাইনে বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার নানারকম পদ্ধতি আছে। বিভিন্ন সাইট থেকে গল্প, কবিতা লিখেও আয় করা যায়। আবার, নিজের
অনলাইনে পড়াশোনা

অনলাইনে পড়াশোনা করুন ঘরে বসেই সম্পূর্ণ ফ্রিতে

অনলাইনে পড়াশোনা করাটা এখন খুব একটা কঠিন কাজ না। পৃথিবীর সেরা বিশ্ববিদ্যালয়, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং সংস্থাগুলো অনলাইনে পড়ালেখা করা যায়
বিড ছাড়া মার্কেটপ্লেসে কাজ

বিড ছাড়া ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ পাওয়ার সহজ পদ্ধতি

বিড ছাড়া যদি আপনি  ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ পেতে চান তাহলে এই লেখাটি পুরোটা মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। আমি তাদের জন্য এই

Leave a Reply