পঞ্চপান্ডব

বাংলাদেশ ক্রিকেটের পঞ্চপান্ডব

0

espncricinfo তে এই পাঁচ জনকে নিয়ে একটি লেখা প্রকাশিত হয়েছিলো, সেখানে এদের বলা হয়েছিল Fav Five. বাংলাদেশের পত্র পত্রিকায় প্রায়শই এই পাচজনকে বলা হয় পঞ্চপান্ডব।  চলুন একে একে পাচজনের ক্যারিয়ারের সংক্ষিপ্ত পরিসংখ্যান এবং পরিচয় জেনে নেই(২০২০ সালের অক্টোবর পর্যন্ত)-

সাকিব আল হাসান

প্রায় এক দশক ধরে সাকিব আল হাসান ছিলেন ক্রিকেটের সব ফরম্যাটে বিশ্বের সেরা অল রাউন্ডার।  ১৯৮৭ সালে মাগুরায় জন্ম নেয়া সাকিবের বর্তমান বয়স ৩৩, ২০০৬ সালে জিম্বাবুয়ের সাথে ওয়ানডে এবং ২০০৭ সালে ভারতের সাথে টেস্ট অভিষেক হয়। সাকিব প্রথম টি টুয়েন্টি খেলেছিলেন ২০০৬ সালে জিম্বাবুয়ের সাথে। সর্বশেষ পরিসংখ্যান।

টেস্টঃ ৫৬ ম্যাচে ৩৯.৪ গড়ে ৩৮৬২ রান করেছেন। ২১০ উইকেট নিয়েছেন ৩.০১ ইকনমি রেটে

ওয়ানডেঃ ২০৬ ম্যাচে ৩৭.৯০ গড়ে ৬৩২৩ রান করেছেন। ২৬০ উইকেট নিয়েছেন ৪.৪১ ইকনমি রেটে

টি টুয়েন্টিঃ ৭৬ ম্যাচে ২৩.৭০ গড়ে করেছেন ১৫৬৭ রান। ৯২ উইকেট নিয়েছেন ৬.৮১ ইকনমি রেটে

উইজডেন তাকে এই শতাব্দির সেরা খেলোয়াড়দের তালিকায় ২ নম্বরে রেখেছে।

মাশরাফি বিন মর্তুজা

নড়াইলের ছেলে মাশরাফি বিন মর্তুজা বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে ক্রিকেট খেলে শুরু করেন ২০০১ সালে। তখন তার বলের গতি অন্য সবার চেয়ে বেশী ছিল বলে তাকে ডাকা হতো নড়াইল এক্সপ্রেস নামে। এক ক্যালেন্ডার ইয়ারে ৪৯ উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব তিনি দেখিয়েছিলেন যা, ঐ বছরে বাংলাদেশের এবং বিশ্বের সর্বোচ্চ ছিল।

টেস্টঃ  ৩৬ ম্যাচে ৭৮ উইকেট নিয়েছেন ৩.২৪ ইকনমি রেটে

ওয়ানডেঃ  ২২০ ম্যাচে ২৭০ উইকেট নিয়েছেন ৪.৮৮ ইকনমি রেটে

টি টুয়েন্টিঃ ৫৪ ম্যাচে ৪২ উইকেট নিয়েছেন ৮.০৪ ইকনমি রেটে

মাশরাফির নেতৃত্বে বাংলাদেশ কয়েকটি বড় দলের সাথে সিরিজ জিতেছে এবং বিশ্বকাপে আন্ডারডগ থেকে শক্তিশালী প্রতিপক্ষ হিসেবে বিবেচিত হতে শুরু করেছে। আক্রমণাত্মক ক্যাপ্টেন্সিতে তিনি সফলতা পেয়েছেন। ইঞ্জুরি থেকে বারবার মাঠের খেলায় ফিরে আসার কৃতিত্ব তিনি ছাড়া বিশ্বের আর কোন ক্রিকেটার দেখাতে পারেননি। ৩৭ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার অবসরের পর সাংসদ হিসেবে রাজনৈতিক জীবন শুরু করেছেন।

 বাংলাদেশ ক্রিকেটের পঞ্চপান্ডব

মুশফিকুর রহিম

২০০৫ সালে জাতীয় দলে মুশফিকুর রহিমের অভিষেক হয়। মাহমুদুল্লাহর ভাইরা মুশফিকুর রহিম বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ক্যাপ্টেন, তিনি টেস্টে সবচেয়ে সফল ক্যাপ্টেন। পৃথিবীর একমাত্র উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান হিসেবে তিনি দুটি ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন।  সাঙ্গাকারা নিঃসন্দেহে একজন কিংবদন্তী উইকেট কিপার এবং ব্যাটসম্যান, কিন্তু তিনি উইকেট কিপার হিসেবে একাধিক ডাবল সেঞ্চুরি করেননি। শুধু ব্যাটসম্যান হিসেবে করেছিলেন।

টেস্টঃ ৭০ ম্যাচে ৩৬.৮ গড়ে ৪৪১৩ রান করেছেন।

ওয়ানডেঃ ২১৮ ম্যাচে ৩৬.৩০ গড়ে ৬১৭৪ রান করেছেন।

টি টুয়েন্টিঃ ৮৬ ম্যাচে ২০ গড়ে করেছেন ১২৮২ রান

যে ম্যাচে শচীন টেন্ডুলকার সেঞ্চুরির সেঞ্চুরি করেছিলেন, সেই ম্যাচটি শক্তিশালী ভারত ক্রিকেট দলের সাথে মুশফিকুর রহিমের নেতৃত্বে এবং ব্যাটিং নৈপূণ্যে বাংলাদেশ দল জিতেছিল। এরকম আরো অনেক ইনিংস তিনি খেলেছেন যা তাকে অনন্য করে তুলেছে, উইকেট কিপিং ক্যারিয়ারে ডিসমিসালের ডাবল সেঞ্চুরিও তিনি সম্পন্ন করেছেন।

তামিম ইকবাল খান

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সর্বকালের সেরা ওপেনারের নাম তামিম ইকবাল খান। তিনি সম্পর্কে বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক আকরাম খানের ভাতিজা। কোন ম্যাচে বাজে খেললেই বাংলাদেশের দর্শকদের এই সম্পর্কের কথা মনে পড়ে। তামিম ইকবাল এখন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক। ৩১ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারের অভিষেক হয়েছিল ২০০৭ সালে।

টেস্টঃ ৬০ ম্যাচে ৩৮.৬ গড়ে ৪৪০৫ রান করেছেন

ওয়ানডেঃ ২০৭ ম্যাচে ৩৬.৭০ গড়ে ৭২০২ রান করেছেন

টি টুয়েন্টিঃ ৭৮ ম্যাচে ২৪.১০ গড়ে করেছেন ১৭৫৮ রান

উইজডেনের বিচারে একবার(সারা বিশ্বের মধ্যে) বর্ষসেরার তকমা জেতা তামিম ইকবাল বিশ্বের সেরা বামহাতি ওপেনারদের একজন। যারা এই প্রজন্মের আগের ক্রিকেট দেখেছেন তারা জানেন, বাংলাদেশ দলের খেলা শুরুর কিছুক্ষণ পরেই দেখা যেত কয়েক উইকেট নাই, তামিম ভালো শুরু এনে দেয়ার কাজটা যে ভালো পারেন তা এখন প্রমাণিত।

মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ

ময়মনসিংহের ছেলে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ওয়ানডে অভিষেক হয় ২০০৭ সালে এবং টেস্ট অভিষেক হয় ২০০৯ সালে। লোয়ার মিডল অর্ডারে ব্যাটিং করেন অনেকবার তিনি বিপর্যস্ত বাংলাদেশ দলকে জয়ের কাছাকাছি নিয়ে গিয়েছেন এবং কয়েকবার জয়ের স্বাদ দিয়েছেন। বাংলাদেশের হয়ে বিশ্বকাপে প্রথম সেঞ্চুরিটি মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ এর। ২০১৫ বিশ্বকাপে ৭৩ এভারেজে ৩৬৫ রান করেছিলেন যা ছিল অতিমানবীয়।

পড়ুন- প্রথম বিশ্বকাপ ক্রিকেট কোথায় অনুষ্ঠিত হয়?

টেস্টঃ ৪৯ ম্যাচে ৩১.৮ গড়ে ২৭৬৪ রান করেছেন। ৪৩ উইকেট নিয়েছেন ৩.৪৪ ইকনমি রেটে

ওয়ানডেঃ ১৮৮ ম্যাচে ৩৩.৬০ গড়ে ৪০৭০ রান করেছেন। ৭৬ উইকেট নিয়েছেন ৫.১৭ ইকনমি রেটে

টি টুয়েন্টিঃ ৮৭ ম্যাচে ২৪.২০ গড়ে করেছেন ১৪৭৫ রান। ৩১ উইকেট নিয়েছেন ৭.২৯ ইকনমি রেটে

বাংলাদেশের হয়ে বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান স্কোরার ক্রিকবাজের করা টুর্নামেন্টের সেরা দলেও জায়গা করে নিয়েছিলেন

0
(Visited 5 times, 1 visits today)

admin

Author: admin

বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লেখার চেষ্টা করছি

Related Posts

ক্রিকেট খেলার খবর

বাংলাদেশ ক্রিকেট খেলার সব খবর- সেরা ৫ টি ওয়েবসাইট

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের খেলার সর্বশেষ সব খবর এবং সঠিক তথ্য পেতে প্রতিষ্ঠিত সংবাদপত্রগুলোর অনলাইন ভার্সন ভিজিট করুন। আমার জানামতে প্রথম
বল বাই বল ক্রিকেট খেলার স্কোর

ক্রিকেট খেলার লাইভ স্কোর দেখার ৫টি ওয়েবসাইট

আপনারা অনলাইনে অনেক কিছু লিখে খোজাখুজি করেন যেমনঃ ক্রিকেট লাইভ স্কোর, ক্রিকবাজ লাইভ স্কোর, আইপিএল লাইভ স্কোর ইত্যাদি। আমরা সেরা
ক্রিকেট খেলা

টি 20 বিশ্বকাপ ২০২১ এর দলের তালিকা এবং সময়সূচি

এবারের বিশ্বকাপ হবে দুটি পর্বে। টি ২০ বিশ্বকাপ ২০২১ এর প্রথম পর্বে খেলছে ৮ টি দল, খেলা হবে ওমান এবং
ক্রিকেট খেলা

ক্রিকেট খেলার ইতিহাস, ভিডিও, কুইজ, খবর

সম্ভবত ক্রিকেট খেলা বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা। এই খেলাকে কেন্দ্র করে অনেক রকম তর্ক, বিতর্ক এমনকি মারামারি, হাতাহাতি পর্যন্ত হয়।

Leave a Reply