মৃত্যু…

0

 

যত উপার্জন, খ্যাতি সম্মান

ধূলাসম এইখানে,

নিশ্চুপ এক কালব্যাধি সে

মৃত্যুর অবদানে।

 

কত কালের কত নবাব, রাজা

শাসক, জমিদার—

মিশে গেছে কালের অতল গর্ভে

খোঁজ কে বা রাখে তার?

 

এক সময় যে প্রতাপে, সুনামে

চলেছে শক্তিধর,

নিভে গেছে সে বাতি উজ্জ্বল

হারিয়েছে যাযাবর।

 

কে জানে কবে কোনদিন কার

মৃত্যুর আসে দিন,

মমতা, আদরের শৃঙ্খল ভেঙ্গে

যেতে হয় বন্ধনহীন।

 

শৈর্য্য, ক্ষমতা, সম্পদ যত

পড়ে থাকে অবহেলে–

চলে যেতে হয় অজানার পথে

সবটুকু কাজ ফেলে।

 

অবধারিত এক সত্যের কাছে

মোরা কত অসহায় !

উবে যায় মিছে স্বপ্ন, বাসনা

আকাঙ্ক্ষা, অভিপ্রায়।

 

প্রেমময় এক সংসার পেতে

কত সুখ আর বৈভব—

আনন্দ খেলা,খেলি সবে মিলে

খুঁজে ফিরি শৈশব।

 

বন্ধন এক প্রীতি মমতায়,

ভুলে থাকি মরনেরে

অনন্তের ডাক আচানক এসে

আলোটুকু নেয় কেড়ে।

 

ডুবে থাকি কত কাজে, অকাজে

নিজেকে ও যাই ভুলে,

একদিন কবে—চলে যেতে হবে

জীবন অস্তাচলে।

 

চাই বা না চাই, কি আসে যায়

যেতে হয় ঐ পার—

মূলধন কিছু আছে কি জমা?

ভেবেছ কি একবার?

 

কতজন গেল দেখি প্রতিদিন

কবে জানি যেতে হয় ,

কত আয়োজন, চারপাশে জমা

পাপ আর অপচয়।

 

চিরজীবনের তরে একদিন

হিসেবের খাতা রেখে,

চিরনিদ্রায় ঘুমাবে এ দেহ

মৃত্যু কালিমা মেখে।

 

শেষ কালে শেষ সময়ে যেন গো

প্রিয়জন থাকে পাশে—

মুখগুলো দেখে চোখ বুঁজি সুখে

বিধাতাকে ভালোবেসে।

 

আরো পড়ুন-

0

MD MOINUL ISLAM

Author: MD MOINUL ISLAM

Related Posts

পেয়ারীর রায় — সুজন চন্দ্র দাস

অপরাধ করার পরও অপরাধী যতটুকু না শাস্তি পায় কাউকে সত্যিকার ভালোবেসে অধিক শাস্তি হয় পেয়ারীর রায়; মানুষ তার প্রেমেই পড়ে

ভারত মাতা- Dipankar Saha (Deep)

নমঃ নমঃ নমঃ      ভারত মাতা। তব চরণে করি     নত মাথা।। তুমি আমাদের   জন্মদাতা- এই জীবনের শক্তিদাতা।। দুঃখ
হাসপাতালের শয্যা- কবিতা

হাসপাতালের শয্যা থেকে বলছি  – সুজন চন্দ্র দাস

আমি হাসপাতালের শয্যা থেকে বলছি দিন শেষে বলি, এইতো আরো একটা দিন বেঁচে গেছি নরকের যন্ত্রণা সহ্য করে বেঁচে আছি
পঞ্চকবি, পঞ্চপান্ডব, অমিয় চক্রবর্তী, বিষ্ণু দে, বুদ্ধদেব বস্য, সুধীন্দ্রনাথ দত্ত, জীবনানন্দ দাস

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চপান্ডব এবং পঞ্চকবি

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চকবি এবং পঞ্চপান্ডব রয়েছে।  পঞ্চপান্ডব বলে পরিচিত কবিরা রবীন্দ্রনাথের জীবদ্দশায় রবীন্দ্র বলয়ের বাইরে গিয়ে কবিতা রচনা করেছিলেন। এই পাঁচজন

Leave a Reply