মৃত্যু…

0

 

যত উপার্জন, খ্যাতি সম্মান

ধূলাসম এইখানে,

নিশ্চুপ এক কালব্যাধি সে

মৃত্যুর অবদানে।

 

কত কালের কত নবাব, রাজা

শাসক, জমিদার—

মিশে গেছে কালের অতল গর্ভে

খোঁজ কে বা রাখে তার?

 

এক সময় যে প্রতাপে, সুনামে

চলেছে শক্তিধর,

নিভে গেছে সে বাতি উজ্জ্বল

হারিয়েছে যাযাবর।

 

কে জানে কবে কোনদিন কার

মৃত্যুর আসে দিন,

মমতা, আদরের শৃঙ্খল ভেঙ্গে

যেতে হয় বন্ধনহীন।

 

শৈর্য্য, ক্ষমতা, সম্পদ যত

পড়ে থাকে অবহেলে–

চলে যেতে হয় অজানার পথে

সবটুকু কাজ ফেলে।

 

অবধারিত এক সত্যের কাছে

মোরা কত অসহায় !

উবে যায় মিছে স্বপ্ন, বাসনা

আকাঙ্ক্ষা, অভিপ্রায়।

 

প্রেমময় এক সংসার পেতে

কত সুখ আর বৈভব—

আনন্দ খেলা,খেলি সবে মিলে

খুঁজে ফিরি শৈশব।

 

বন্ধন এক প্রীতি মমতায়,

ভুলে থাকি মরনেরে

অনন্তের ডাক আচানক এসে

আলোটুকু নেয় কেড়ে।

 

ডুবে থাকি কত কাজে, অকাজে

নিজেকে ও যাই ভুলে,

একদিন কবে—চলে যেতে হবে

জীবন অস্তাচলে।

 

চাই বা না চাই, কি আসে যায়

যেতে হয় ঐ পার—

মূলধন কিছু আছে কি জমা?

ভেবেছ কি একবার?

 

কতজন গেল দেখি প্রতিদিন

কবে জানি যেতে হয় ,

কত আয়োজন, চারপাশে জমা

পাপ আর অপচয়।

 

চিরজীবনের তরে একদিন

হিসেবের খাতা রেখে,

চিরনিদ্রায় ঘুমাবে এ দেহ

মৃত্যু কালিমা মেখে।

 

শেষ কালে শেষ সময়ে যেন গো

প্রিয়জন থাকে পাশে—

মুখগুলো দেখে চোখ বুঁজি সুখে

বিধাতাকে ভালোবেসে।

 

আরো পড়ুন-

0
(Visited 70 times, 1 visits today)

MD MOINUL ISLAM

Author: MD MOINUL ISLAM

আরো লেখা খুঁজুন

আপনার সক্রিয়তা পয়েন্টঃ

Related Posts

শান্তি

অনেক আগে লীগ অব নেশনস্ দূর করতে চেয়েছিলো টেনশান। কিন্তু, তারপরেও দেখেছিলো বিশ্ব জাপানের হিরোশিমা আর নাগাসাকির দৃশ্য। তারপর ১৯৪৫

আমায় মোনাজাতে রাখিয়

  চলার পথে অনেকেই হারিয়েছি বলার মতন নয় জানি না কোনদিন তাদের মত হারিয়ে যাব পার যুদি মোনাজাতে আমায় সরণ

একুশ আমার খুশি

একুশ আমার খুশি একশে দিন ভাষার মাসে ছন্দ জাগে বাংলা ভাষা অতি মিষ্টি কী যে করুণ লোহু সৃষ্টি শ্রদ্ধা মেখে

শুভ্র ভালোবাসা

মুগ্ধ দ্যুতি মনটা ঘোরে সুবাস ঝিলে সূর্য হলে জ্বলবে তুমি গাত্র হবে শীতল ভূমি ইচ্ছে হলে ঘুরতে যাব চরণ বিলে।

Leave a Reply