টুইটার একাউন্ট খোলার নিয়ম

কিভাবে টুইটার একাউন্ট খুলতে হয়?

0

আপনি চাইলে আলাদা ইমেইল এড্রেস ব্যবহার করে একাধিক টুইটার একাউন্ট খুলতে পারবেন। কিভাবে খুলতে হয় সেটি ধাপে ধাপে বর্ণনা করবো। আপনার পার্সোনাল একাউন্টের পাশাপাশি বিজনেস একাউন্ট খোলার জন্যও একই পদ্ধতি অনুসরণ করতে পারেন।

এই লেখাটিতে টুইটার একাউন্ট খোলার নিয়ম, ব্যবহারের পদ্ধতি, একাউন্ট ডিলিট করার নিয়ম, এবং আরো কিছু তথ্য দেয়ার চেষ্টা করবো। আপনারা এখানে যত বেশী একটিভ থাকবেন তত বেশী রিচ বাড়বে। এর ফলে আপনার জনপ্রিয়তাও বাড়বে। বিশ্বের বড় বড় সেলিব্রেটিরা মাঝে মাঝেই টুইট করেন, সেগুলো দেখতে পাবেন।

টুইটার চালু হয় ২০০৬ সালে, মার্চ মাসে এর কার্যক্রম শুরু হয়। একটি দুটি বাক্যে নিজের মত লেখার জন্য টুইটারের বিকল্প কোন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এখনো তৈরি হয় নি যা এতটা জনপ্রিয়। এটি উদ্বোধন করেছিলেন জ্যাক ডর্সি। এর উদ্দেশ্য হচ্ছে সার্বজনীন বক্তব্য কম কথায় প্রকাশ করা।

টুইটার একাউন্ট এর জন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন

ওয়েবসাইটের ঠিকানা হচ্ছে twitter.com. এখান থেকে ভিজিট করে ধাপগুলো অনুসরণের মাধ্যমে নিজের একটি একাউন্ট তৈরি করে নিতে পারবেন-

ধাপ ১ঃ twitter.com ভিজিট করে হোমপেজ থেকে Sign Up বাটনে ক্লিক করুন

ধাপ ২ঃ এবারে একটি ফর্ম আসবে। সেখানে Username, Date of Birth, email account অথবা, ফোন নম্বর ইত্যাদি। ঠিকঠাকমতো সব পূরণ করুন। আর, একটা কথা- Username যত ছোট হয় ততোই ভালো, এটি আপনার প্রফাইলকে নির্দেশ করবে তাই একটু চিন্তাভাবনা করে ছোট একটি Username বেছে নেবেন। ফর্ম পূরণের পালা শেষে Next এ ক্লিক করুন।

ধাপ ৩ঃ কিভাবে বিজ্ঞাপন দেখতে চান সেটা বেছে নিয়ে Next এ চলে যান

ধাপ ৪ঃ এবার Create and Account এ ক্লিক করুন, ৯০% কাজ শেষ। এবারে আপনার ইমেইল বা, ফোন নম্বরে ভেরিফিকেশন কোড যাবে। ঐ কোডটি দিয়ে কনফার্ম করুন।

ধাপ ৫ঃ এবারে ৮ অক্ষরের পাসওয়ার্ড দিন। সংখ্যা এবং বর্ণ এই দুইটার কম্বিনেশন রাখার চেষ্টা করবেন। তাহলে পাসওয়ার্ড শক্তিশালী হবে। অনেকে আবার নিজের পাসওয়ার্ড ভুলে যায়, নিজেই মনে রাখতে পারবেন না এমন পাসওয়ার্ড ব্যবহারের কোন যৌক্তিকতা নাই।

ধাপ ৬ঃ একটি ছবি যোগ করে ফেলুন। সেটিং পেজের উপরে ফটো ট্যাব দেখতে পাবেন। নিজের একাউন্টের জন্য নিজের ছবি। ব্রান্ড একাউন্টের জন্য ব্রান্ডের লোগো ব্যবহার করুন।

ধাপ ৭ঃ আপনাকে Yahoo, Gmail বা, Outlook এর মাধ্যমে আপনার সেভ করা ইমেইল এড্রেস import করার অপশন দেবে। চাইলে এই লিস্ট সেখান থেকে import করার মাধ্যমে আপনার পরিচিতজনদের খুজে পেতে পারেন।

ধাপ ৮ঃ সব শেষে আপনার একাউন্টে আরো যত তথ্য যোগ করা যায় সব তথ্য যোগ করে ফেলুন। ওয়েবসাইটের ঠিকানা, ছোট বর্ণনা, প্রফাইলের নাম ইত্যাদি।

এবারে ব্যবহার করতে থাকুন, সেলিব্রেটি, বন্ধুবান্ধবদের ফলো করুন, টুইট করুন।

পড়ুন- লুডু গেম খেলে টাকা ইনকাম

টুইটার ব্যবহারের নিয়ম

এখন ১৪০ শব্দের বেশী শব্দে টুইট করা যায় যা আগে যেত না। এরপরেও অনেক বেশী শব্দ লেখা যায় না। ছবি এবং ভিডিও শেয়ার করা যায়। অনেকেই কিছু শর্টকার্ট লেখা ব্যবহার করে থাকেনযেমনঃ b/c = because, BFN = bye for now, BTW = by the way, EM = email, FB = Facebook ইত্যাদি।

এছাড়া বড় লিংক দিলে বাজে দেখায়, তাই লিংক ছোট করে নিতে অনেকেই পছন্দ করেন। এজন্য আপনিও কোন লিংক শেয়ার করার আগে কোন link shortener ব্যবহার করতে পারেন। bitly, is.gd, rebrandly ইত্যাদি সাইটের মাধ্যমে এগুলো ব্যবহার করা যায়।

ফলোয়ার বাড়ানোর পদ্ধতি

টুইটার মার্কেটিং জনপ্রিয় একটি পদ্ধতি।  যারা ব্লগার তারা টুইটার থেকে সোশ্যাল সিগনাল পেতে পারেন, এটি অত্যন্ত কার্যকর একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। একটিভ থাকলেই টুইটারে রিচ বাড়ে। নিজের আগ্রহের সাথে সম্পর্ক আছে, এমন একাউন্টগুলোকে ফলো করে রাখুন, তাহলে অন্যেরাও আপনাকে ফলো করবে। রিটুইট করুন, নিয়মিত লেখা, ছবি, ভিডিও পোস্ট করুন।

আগেও বলেছি, যত বেশী একটিভ থাকবেন আপনার টুইটের ইম্প্রেসন তত বাড়বে। তাই যারা বেশী একটিভ থাকে তাদের ফলোয়ার বেশী থাকে। আকর্ষণীয় টুইটগুলোতেও বেশী ভিউ মেলে। ছবি এবং ভিডিও শেয়ারের মাধ্যমে টূইটের বৈচিত্র আনতে পারেন।

 

টুইটার একাউন্ট ডিলিট করার নিয়ম

ছোট কয়েকটি ধাপে বলে দিচ্ছি কিভাবে একাউন্ট ডিলিট করা যায়। অনেক সময় সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্ট আমাদের ভালো লাগে না, এছাড়া ডিলিট করার নানারকম কারণ থাকতে পারে। শুরু করি-

  • লগ ইন করে প্রফাইল আইকনে ক্লিক করুন
  • এবারে যে মেনু দেখাচ্ছে সেখান থেকে সেটিং এ যান
  • স্ক্রল করে নিজের দিকে দেখুন- Deactivate My Account দেখতে পাবেন
  • এবারে Deactivate লেখায় ক্লিক করে Username আর পাসওয়ার্ড দিন
  • OK দিয়ে কনফার্ম করে দিন। হয়ে গেলো।

৩০ দিন সময় পাবেন একাউন্ট ফিরিয়ে আনার। ৩০ দিনের মাঝে মত না বদলালে একাউন্ট আজীবনের জন্য ডিলিট হয়ে যাবে।

কিছু প্রশ্নের উত্তর

নতুন কোন সোস্যাল মিডিয়ায় একাউন্ট খোলার আগে আমাদের মনে নানারকম প্রশ্ন কিলবিল করতে থাকে। আপনার মনেও নিশ্চয়ই অনেকরকম প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে। চলুন কিছু প্রশ্নের উত্তর এখন জেনে নেই-

টুইটারে কত শব্দ লেখা যায়?

আগে একসময় ১৪০ টি অক্ষরের বেশী লেখা যেত না। বাংলায় লিখতে গেলে সম্ভবত আরো কম লেখা যায়। কিন্তু ২০১৭ সালে টুইটার নিয়ম করে এখন থেকে ২৮০ অক্ষরের টুইট করা যাবে। ভারতের পশ্চিবঙ্গের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কঙ্গনা রানাউত নামের একজন বলিউড অভিনেত্রী বেফাস মন্তব্য করে তার, টুইটার একাউন্ট হারিয়েছেন।

ডোনাল্ট ট্রাম্প থেকে শুরু করে বিশ্বের অনেক রাজনীতিবিদ, খেলোয়াড়, চলচ্চিত্র তারকারা অল্প শব্দে তাদের মনের ভাব, ছবি, ভিডিও ইত্যাদি যুক্ত করে প্রকাশ করে থাকেন। একসময় গুগোলের সার্চে টুইটগুলো যম্ভবত ঠিকঠাক আসতো না, এখন আসে।

টুইটার কিভাবে চালায়?

খুব স্বাভাবিক, ফেসবুকের মতোই। এটি আপনি আপনার কম্পিউটারে twitter.com লিখে ভিজিট করেও চালাতে পারবেন, মোবাইলেও এপ ইনস্টল করে চালাতে পারবেন। শুধু রেজিস্ট্রেশন আর, লগ ইন করা থাকলেই সব টুইট দেখতে পাবেন, নিজেও টুইট করতে পারবেন। অন্যদের টুইটে মন্তব্যও করতে পারবেন। সেলিব্রেটিদের টুইট নিয়ে নিয়মিত পত্রিকায় নিউজ হয়।

টুইটার স্ট্যাটাস কে কি বলে?

আগেও কয়েকবার ব্যবহার করেছি, এটাকে টুইট বলে। ছোট ছোট স্ট্যাটাসকে বলা হয় টুইট। নতুন সব হট টুইটগুলো হ্যাশ ট্যাগ ব্যাবহার করে লেখা হয়। হ্যাশ ট্যাগ দিয়ে কোন কিছুকে টুইটারে ভাইরাল করে দেয়া যায়। রেকমেন্ডেশনেও হ্যাশট্যাগ দেখায়। মূলত একই হ্যাশট্যাগের সব লেখা আপনি চাইলে এক পেজে দেখতে পাবেন। সামাজিক নানারকম আন্দোলনে এই ট্যাগের সাথে আমরা পরিচিত।

 

আরো পড়ুন-

0

প্রবন্ধ লেখক

Author: প্রবন্ধ লেখক

বিভিন্ন বিষয়ে প্রবন্ধ লেখার চেষ্টা করছি

Related Posts

Apple iphone 14

বাজারে আসছে আইফোন ১৪

আইফোন ১৪: অ্যাপল বিষয়ক খবরের ওয়েবসাইট আইড্রপনিউজের বরাতে ‘টেকরেডার’ নামের প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট জানিয়েছে, সেপ্টেম্বরের ১৩ তারিখই মুক্তি পেতে পারে অ্যাপলের নতুন আইফোন ১৪।সেপ্টেম্বর মানেই
প্রিন্টার

কোন প্রিন্টার সবচেয়ে ভালো?

বন্ধুরা, ভাবছেন প্রিন্টার কিনবেন কিন্তু বুঝে উঠতে পারছেন না কোন প্রিন্টারটি সবচেয়ে ভালো হবে বা কোনটি আপনি কিনবেন? হ্যা এমনটাই
অপারেটিং সিস্টেম

অপারেটিং সিস্টেম সফটওয়্যার (Operation System Software) কী? অপারেটিং সিস্টেম সফটওয়্যারের কাজ কি

অপারেটিং সিস্টেম সফটওয়্যার (Operation System Software) কী? অপারেটিং সিস্টেম সফটওয়্যারের কাজ লিখ: উত্তর: সিস্টেম সফটওয়্যার (System Software) হলো কম্পিউটারের হার্ডওয়্যার
ইউটিউব থেকে আয়

ইউটিউব থেকে আয় করার উপায়

ইউটিউব থেকে আয় করার অনেক রকম উপায় আছে। এই লেখাটিতে আয় করার উপায়সহ ইউটিউব সম্পর্কিত আরো অনেকগুলো বিষয় সম্পর্কে আপনাদেরকে

Leave a Reply