ভারত মাতা- Dipankar Saha (Deep)

0

নমঃ নমঃ নমঃ      ভারত মাতা।
তব চরণে করি     নত মাথা।।
তুমি আমাদের   জন্মদাতা-
এই জীবনের শক্তিদাতা।।

দুঃখ অশনি তথা
তারি মাঝে মঙ্গল ধ্বনি গাঁথা।
দুঃখ সুখ দৈন্য লেশ হীনমন্যতা
তুমি আমাদের ভাগ্য বিধাতা।।

নমঃ নমঃ নমঃ      হে শ্রেষ্ঠা
ঐক্য বন্ধন ঐক্যতা।
স্বর্গ সুখ,অলকানন্দা-
অবিরত বহে সকল দেবতা।।

হিন্দু মুসলিম খ্রিষ্ঠান বোদ্ধা,
এক দেহে লীন হয় একতা।
তব চরণে করে বন্দনা-
তুমি আমাদের সুখশান্তি ত্রাতা।।

প্রভাত সন্ধ্যা রাত্রি দিবা
শশী রবি গিরি নদী মালা।
তব গীতে করে আরাধনা।
শুদ্ধ হয় শোনে কোরান ও গীতা।।

হে মম         ভারত মাতা
তব পবিত্র অঙ্গ আঙ্গিনা
ধন্য  এ জীবনের কাব্য কথা
পেয়ে তব স্নেহ মমতা।।

নমঃ নমঃ নমঃ ভারত মাতা
তব চরণে করি নত মাথা।।

0

Dipankar Saha Deep

Author: Dipankar Saha Deep

বাংলা সাহিত্যের নবীন দিশারী।

Related Posts

পেয়ারীর রায় — সুজন চন্দ্র দাস

অপরাধ করার পরও অপরাধী যতটুকু না শাস্তি পায় কাউকে সত্যিকার ভালোবেসে অধিক শাস্তি হয় পেয়ারীর রায়; মানুষ তার প্রেমেই পড়ে
হাসপাতালের শয্যা- কবিতা

হাসপাতালের শয্যা থেকে বলছি  – সুজন চন্দ্র দাস

আমি হাসপাতালের শয্যা থেকে বলছি দিন শেষে বলি, এইতো আরো একটা দিন বেঁচে গেছি নরকের যন্ত্রণা সহ্য করে বেঁচে আছি
পঞ্চকবি, পঞ্চপান্ডব, অমিয় চক্রবর্তী, বিষ্ণু দে, বুদ্ধদেব বস্য, সুধীন্দ্রনাথ দত্ত, জীবনানন্দ দাস

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চপান্ডব এবং পঞ্চকবি

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চকবি এবং পঞ্চপান্ডব রয়েছে।  পঞ্চপান্ডব বলে পরিচিত কবিরা রবীন্দ্রনাথের জীবদ্দশায় রবীন্দ্র বলয়ের বাইরে গিয়ে কবিতা রচনা করেছিলেন। এই পাঁচজন

শান্তি

অনেক আগে লীগ অব নেশনস্ দূর করতে চেয়েছিলো টেনশান। কিন্তু, তারপরেও দেখেছিলো বিশ্ব জাপানের হিরোশিমা আর নাগাসাকির দৃশ্য। তারপর ১৯৪৫

Leave a Reply