কীভাবে আল্লাহর তাওহিদ ক্ষুন্ন হয়

তাওহিদ কী? কীভাবে আল্লাহর তাওহিদ ক্ষুন্ন হয়

0তাওহিদ কী? কীভাবে আল্লাহর তাওহিদ ক্ষুন্ন হয়   ইসলামই একমাত্র ওহি বিশিষ্ট ধর্ম, যেখানে আল্লাহ তাঁর সমস্ত গুণাবলীর সাথে কাউকে অংশীদারিত্বের ভাগ প্রদান করেন না। কেননা আল্লাহ হচ্ছেন একক, অদ্বিতীয় এবং একচ্ছত্র ক্ষমতার অধিকারী। আর আল্লাহর পরিপূর্ণ পরিচয়ের নাম হচ্ছে তাওহিদ। আজ আমরা তাওহিদ কী,  তাওহিদের শ্রেণীবিভাগ এবং কীভাবে তাওহিদের মর্যাদা ক্ষুন্ন হয় তা জানার

পরিপূর্ণ ঈমানের বিস্তারিত ব্যাখ্যা

ঈমান কী, পরিপূর্ণ ঈমানের বিস্তারিত ব্যাখ্যা

0ঈমান কী, পরিপূর্ণ ঈমানের বিস্তারিত ব্যাখ্য ইসলাম হচ্ছে আল্লাহর পূর্ণ বিধানে আনুগত্য করা। এই পরিপূর্ণ বিধানকে  মুখে স্বীকৃতি, অন্তরে বিশ্বাস এবং কাজে সম্পূর্ণ করাই হচ্ছে ঈমান। যার সহজ অর্থ হলো ইসলামের বিধানকে মুখে এবং অন্তরে স্বীকার করে সেইমতে কাজ করাই হচ্ছে ঈমান। যে এই কাজ অর্থাৎ ঈমান এনে ইসলামের প্রতি আনুগত্যশীল হয় তাকে বলা হয়

আল্লাহর কাছে যারা সফল

1আল্লাহ জ্বীন এবং মানুষকে সৃষ্টি করেছেন তাঁর ইবাদত করার জন্য। এই ইবাদতের দ্বারা তিনি দেখতে চান কারা কারা সত্যিকারের বিশ্বাসী,  আল্লাহভীরু, পরহেযগার,  মুত্তাকী। যারা আল্লাহর আদেশ নিষেধ মেনে তাদের দুনিয়াবী জীবন অতিবাহিত করতে পারবে  তাদের জন্য রয়েছে আল্লাহর পুরস্কার তথা জান্নাত। আর তাঁরাই হচ্ছে আল্লাহর কাছে সফল ব্যক্তি। আজ আমরা জানার চেষ্টা করব আল্লাহর দৃষ্টিতে

শিরক কী, মানুষ কীভাবে শিরক করে

0শিরক কী, মানুষ কীভাবে শিরক করে ইসলামই একমাত্র ধর্ম যেখানে স্রষ্টা অর্থাৎ  আল্লাহ তার কোনো ক্ষমতাতেই কাউকে অংশীদার সাব্যস্ত করেননি। আল্লাহই একমাত্র একক ইলাহ যিনি সমস্ত ক্ষমতার অধিকারী। সৃষ্টির শুরু থেকেই আল্লাহ তাওহিদের এই একটি বাণীই প্রচার করেছেন। তারপরও যুগে যুগে মানুষ আল্লাহর বিভিন্ন ক্ষমতার সাথে তাঁর সৃষ্টিকে অংশীদার সাব্যস্ত করেছে। আর এই অংশীদার করাই

রাসূলের (সা.) আদর্শ এবং অনুসরণই হচ্ছে ইসলাম

0ইসলাম হচ্ছে ওহী বিশিষ্ট সুশৃঙ্খলিত এবং আদর্শিক একমাত্র ধর্ম। অর্থাৎ পবিত্র কুরআন এবং রাসূলের জীবনাদর্শ (হাদিস ও সুন্নাহ) এই দুই মিলিয়েই হচ্ছে পরিপূর্ণ ইসলাম। পবিত্র কুরআনকে অনুসরণ করতে হলে অবশ্যই রাসূলের জীবনাচরণকে প্রতিটি মুমিনের জীবনে প্রতিফলিত করাতে হবে। কেননা রাসূলুল্লাহর (সা.) পরিপূর্ণ জীবনাচরণই হচ্ছে ইসলামের মডেল।    রাসূলুল্লাহর (সা.) ভালোবাসা এবং জীবনাদর্শ ব্যতীত কোনো মুসলিম

কুরআন বিমুখীতার পরিনতি

0কুরআন বিমুখীতার পরিনতি   ইসলাম একটি পরিপূর্ণ জীবনবিধান। যে জীবনবিধানের মূল সংবিধান হলো কুরআন। একজন মুমিনের প্রকৃত কর্তব্য হলো কুরআনকে জানা। এবং সেই অনুযায়ী রাসূলের সা. আদর্শে ইসলামের আনুগত্য করা। সুতরাং যারা কুরআন জানে না, বুঝে না, কিংবা জানা ও বুঝার চেষ্টাও করে না তারা কখনোই প্রকৃত ঈমানদার তথা মুমিন হতে পারে না। তাই যারা

বিশ্বের সেরা কিছু মুসলিম আবিষ্কারক

0বিশ্বের সেরা কিছু মুসলিম আবিষ্কারক শুধু খ্রিস্টান বা বিধর্মীরাই জ্ঞান -বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির জগৎতে এগিয়ে আছে এমন ভুল ধারণা আমাদের মতো অধিকাংশ মানুষেরই রয়েছে। যুগ যুগ ধরে খ্রিস্টান বা বিধর্মী বিজ্ঞানী, চিকিৎসক,আবিষ্কারক ও বিশেষজ্ঞদের নাম-জীবনকথা এবং ইতিহাস জেনে আসছি৷ অথচ জ্ঞান -বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি চর্চায় মুসলমানগণ সমান দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন। এ প্রচেষ্টা ও অবদানের উপর

FB IMG 1669463263349

কবরের প্রশ্ন এবং আমাদের অজ্ঞতা

0কবরের  প্রশ্ন এবং আমাদের অজ্ঞতা  কবর, প্রতিটি মানু‌ষেরই নির্ধারিত একটি গন্তব্য। জন্ম যেমন সত্য, মৃত্যুর পর কবরের বিভীষিকাও তেমন সত্য। আল্লাহ্ মানুষকে সৃষ্টি করেছেন পরীক্ষা করার জন্য। এই পরীক্ষার প্রথম ধাপ হচ্ছে কবর। কবরে পরীক্ষিত বিষয় কী কী  হবে তাও তিনি রাসুলুল্লাহ সাঃ এর মাধ্যমে আগেই জানিয়ে দিয়েছেন।  আমাদের উপমহাদেশের সকল আলেম উলামারা প্রতিনিয়তই বিভিন্ন

আল্লাহ্‌র হিদায়াত পাওয়ার শর্তসমূহ কী

1পৃথিবীতে আল্লাহ জ্বীন এবং মানুষকে সৃষ্টি করেছেন শুধুমাত্র আল্লাহর ইবাদতের জন্য। অর্থাৎ জ্বীন এবং মানুষ দুনিয়াতে তাদের জীবন অতিবাহিত করবে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য। আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করতে পারাটা হচ্ছে “হিদায়াত “। অর্থাৎ যারা আল্লাহর রহমতে হিদায়াত প্রাপ্ত তাঁরাই শুধুমাত্র ইবাদতের মাধ্যমে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করতে পারে। প্রতিটি মানুষের হিদায়াত প্রাপ্ত হওয়াটা একমাত্র আল্লাহর হাতে।

কুরআন কেন নাযিল হয়েছে

0 পবিত্র কুরআন একটি ঐশী গ্রন্থ। যা সরাসরি আল্লাহর কাছ থেকে মুহাম্মদ সাঃ এর মাধ্যমে বিশ্ববাসীর জন্য প্রেরিত হয়েছে। এই কুরআন আল্লাহ্ কেন নাযিল করলেন? কুরআন থেকে কী পাওয়া যাবে? কুরআন কাদের জন্য রহমত? কুরআন থেকে কারা হিদায়াত পাবে? কুরআনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য কী? ইত্যাদি প্রশ্নের উত্তর আমরা পাওয়ার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ। কুরআন এসেছে আল্লাহর