টিপস;”স্মার্ট হতে চাইলে যে পাঁচটি অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে “

0

আমরা সবাই চাই যে নিজেকে সবার কাছে আকর্ষণীয় ভাবে তুলে ধরতে।নিজেকে স্মার্ট দেখাতে।

সবার থেকে আলাদা দেখাতে ও প্রশংসা পেতে।

আর তাই আমরা যদি নিজেদের কে স্মার্ট দেখাতে চাই তাহলে অবশ্যই কিছু টিপস মেনে অভ্যাস গুলো নিজেদের মধ্যে গড়ে তুলতে হবে।

↓ নিচে কিছু টিপস দেওয়া হয়েছে সেগুলো যদি আমরা প্রতিদিনের অভ্যাসে গড়ে তুলতে পারি তাহলে অবশ্যই একজন স্মার্ট ব্যাক্তি হতে পারব।

  1. নিজের ব্যাক্তিত্ব বজায় রাখা।এর দ্বারা বুঝনো হয়েছে যে নিজেকে অবশ্যই পরিপাটি রাখতে হবে।যেমন ;উদাহরণ হিসেবে চুল সবসময় পরিষ্কার করতে হবে এবং বেধে রাখা। নখ ছোট রাখা ও পরিপাটির মধ্যে পড়ে। মানানসই জামা পরতে হবে। যা ব্যাক্তিতের পরিচয় বহন করে। আর এ পয়েন্ট খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও কার্যকর ভূমিকা পালন করে নিজেকে স্মার্ট রাখতে।
  2. নিজের সঙ্গে সবসময় টিস্যু বা রুমাল রাখতে হবে। কোথাও যাওয়ার সময় বিশেষ করে কোন অনুষ্ঠানে যাওয়ার সময় নিজের সঙ্গে অবশ্যই টিস্যু বা  রুমাল রাখা উচিৎ। কেননা টিস্যু বা রুমাল আমাদের অনেক সময় প্রয়োজন হয়।আর সে প্রয়োজন মেটাতে টিস্যু বা রুমাল ব্যবহার করতে হবে এবং এর ফলে আরও আকর্ষণ দেখাবে ও স্মার্ট লাগবে।
  3. দাওয়াতে যেতে না পারলে আগে থেকে বলে দেওয়া যে আমি যেতে পারব না। কারন যখন কেউ আমাদের দাওয়াত দেয় তখন আমরা টা গ্রহণ করি। আর অন্য দিকে যে আমাদের দাওয়াত দেয় সে আমাদের জন্য খাবারের আয়োজন করে। আর যখন আমরা সে দাওয়াতে যেতে পারি না তখন যে লোক দাওয়াত দেয় তার অনেক লস হয় এবং পরে আর বিশ্বাস করতে পারে না।যার ফলে আমরা বিশ্বাসঘাতক করে ফেলি হিসেবে বিবেচিত হই।আর তাই আগে থেকে বলে রাখতে হবে যদি দাওয়াতে যেতে না পারি। এতে আর কখনো বিশ্বাস হারা হবো না,এবং স্মার্ট হতে এ টিপসটি খুবই কার্যকরী।
  4. সাহায্য করা ও সদয় হতে হবে। কারণ আমরা যদি ভালো কোন কাজ করি তাহলে সবাই অনেক প্রশংসা করে এবং স্মার্ট হয়ে উঠি।তাই আমাদের উচিৎ কেউ বিপদে পড়লে কিংবা সাহায্যের প্রয়োজন হলে সাহায্যের জন্য এগিয়ে যাওয়া এবং সদয় হওয়া ও ভালো ব্যবহার করা। এর ফলে স্মার্ট দেখাবে এবং আরও আর্কষণ দেখাবে।এতে লোকে আরও প্রশংসা করবে।তাই কখনো খারাপ দৃষ্টিতে ও কটু কথা বলা যাবে না।সবসময় বিপদে পাশে থাকতে হবে।

5.মনোযোগ  দিয়ে অন্যের কথা শুনা।সবসময় নিজে কম কথা বলে অন্যকে কথা বলার সুযোগ করে দিতে হবে। কারণ মানুষ শোনার থেকে বলতে পছন্দ করে। তাই সবসময় নিজে কম কথা বলে সামনের জনকে কথা বলার সুযোগ করে দিতে হবে। এতে সামনের জন আরও ইমপ্রেস হবে ও এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ টিপস। তাছাড়া যত কম কথা বলা যাবে ততই নিজের জন্য ভালো।

এ টিপস গুলো  নিজের মধ্যে অভ্যাসে পরিণত করতে পারলে অনেক টা স্মার্টলি ভাবে আর্কষণীয় হয়ে উঠতে পারব।তাছাড়া ও এ অভ্যাস গুলো নিজের মধ্যে গড়ে তোলা উচিৎ আমাদের।

কথায় আছে “স্মার্টলি হলো ব্যাক্তিতের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে ”

 

 


আরো দেখুন-


56
বিজ্ঞাপনঃ মিসির আলি সমগ্র ১: ১০০০ টাকা(১৪% ছাড়ে ৮৬০)

0

নিচের লেখাগুলো আপনার পছন্দ হতে পারে

শুধু তুমি

তোমার মত কেহ নাই তাইতো আমি তোমায় চাই তুমি আমার আপনজনা, ভাই, ভাই, ভাই।   যে জন তার আপনজনা ভালবাসে

মৃত্যু (৯) (প্রেমের কবিতা)

আমি একজনকে ভালবাসি।একদিন বললাম, এত বেশি ভালবেসোনা এত বেশি ভালবাসলে আমি মরে যাব। বলে তুমি মরে যাও আমি তো সেটাই

কাল কটি

কাল কোটওয়ালাদের কেনা ভালবাসে?  কাল কোটওয়ালাদের সবাই ভালবাসে।আমি একদিন এক কালকোটওয়ালীকে জিজ্ঞেস করেছিলাম, এই তুমি কেমন আছ? বলে, কেন ভাল

আল্লাহ (১৭)

আল্লাহ আল্লাহ কর ভাই আল্লাহ ছাড়া উপায় নাই না গাহিলে কি হবে? জাহান্নামে হবে ঠাঁই যাই,সেই কথাটি বলে যাই।  

One Reply to “টিপস;”স্মার্ট হতে চাইলে যে পাঁচটি অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে “”

Leave a Reply