অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট

সেরা অনলাইন শপিং সাইট কোনগুলো?

0

কেনাকাটার জন্য অনলাইন শপিং সাইট এখন সাধারণ শপিং মল এর চেয়ে বেশী জনপ্রিয়। দারাজ বা, স্বপ্ন এর মতো বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সাইটগুলোর তালিকা এখানে দেয়ার চেষ্টা করবো। আশা করছি আপনারা উপকৃত হবেন।

অনলাইন শপিং ওয়েবসাইটের লিস্ট তৈরি করার ক্ষেত্রে আমরা গুগল এবং আমাদের নিজস্ব বিবেচনাবোধের সাহায্য নিয়েছি। প্রত্যেকটি ওয়েবসাইট লাইভ আছে কি না সেটি চেক করে দেখেছি। মোটামুটি ক্রেতাদের পজিটিভ রেটিং আছে এমন একটা লিস্ট তৈরির চেষ্টা ছিল। 

সূচিপত্রঃ

চাইলে উপরের সূচিপত্র থেকে যেকোন অংশ দেখতে পারেন। এবং, আপনাদের আগ্রহের ভিত্তিতে এই পেজে অনলাইন শপিং সংক্রান্ত আরো অনেক তথ্য যোগ করা হবে। তাই কারো প্রয়োজন মনে হলে পেজটি বুকমার্ক করে রাখতে পারেন(এই লিস্ট অন্য  কোথাও পাবেন না )।

অ্যামাজন শপিং

অ্যামাজন বিশ্বের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিং মলের নাম। দুঃখের বিষয় হচ্ছে বাংলাদেশে এমাজনের সেবা চালু নেই। তবে, বিভিন্ন রকম তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে বাংলাদেশের মানুষেরাও আমাজন থেকে শপিং করে থাকেন।

বিশ্বাস করা যায় এরকম দুটি ওয়েবসাইটের কথা আমি জানি যারা কিছু কমিশন রেখে যেকোন দেশের প্রডাক্ট বাংলাদেশে এনে দেয়ার ব্যবস্থা করে(প্রবাসী যারা দেশে আসে তাদের মাধ্যমে করা হয়, ওদেরকে কমিশন দেয়)। যে দুটি সাইটে পাবেন-

এই দুটি সাইটের মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে এমাজনের প্রডাক্ট কেনা যায়। আমি নিজেও কিনেছি।

অনলাইনে শপিং পণ্য কিভাবে বিক্রি হয়?

এই ব্যাপারটা অনেকেই বুঝতে পারেন না, তাই ব্যখ্যা করছি। যেসব বড় বড় অনলাইন শপিং সাইট আছে, যেমনঃ দারাজ বা, ইভ্যালি। এরা কিন্তু কোন পণ্যই সরাসরি বিক্রি করে না। এরা কাজ করে তৃতীয় পক্ষ হিসেবে

অনেকটা শপিং মলগুলোর মতো- যেমনটা বসুন্ধরা শপিং কমপ্লেক্স বা, এই ধরণের শপিং কমপ্লেক্সগুলোতে দেখা যায়। এইসব অনলাইন সাইটে যে কেউ তার পণ্য বিক্রির জন্য দোকান খুলে বসতে পারে(এজন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র লাগে অবশ্য)।

এরপর সেই দোকানে সব পণ্য সাজিয়ে রাখে। আমরা ক্রেতারা শপিং সাইটে গিয়ে পছন্দের পণ্য পছন্দের স্টল থেকে অর্ডার করি। সেখান থেকে দারাজ বা, ইভ্যালি সংগ্রহ করে পাঠিয়ে দেয় কুরিয়ারে। Redx, Paperfly, Mgx এইগুলো মোটামুটি সারাদেশেই ডেলিভারি দেয়

দ্রুত এইসব অনলাইন শপিং মলগুলো জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। লকডাউনে তো কথাই নেই। সবাই সময়মতো ডেলিভারি দিতে পারে না, কোন কোন দোকানে বাজে পণ্য দেয়। এছাড়া অনলাইন শপিং বেশ ভালোই।

বাংলাদেশী শপিং সাইট

লকডাউনে অনেকেই পণ্য বা, খাবার অর্ডার করে বাসায় বসেই সেটি ডেলিভারি নিয়েছেন। কিছু কমন অভিযোগ আছে এইসব সাইটের বিরুদ্ধে। সেগুলো হচ্ছে-

  • ফোনের বদলে খালি প্যাকেট
  • ৮০% ছাড়ের পরেও পণ্যের দাম বাজারের চেয়ে বেশী
  • ডেলিভারি দিতে দেরী করে
  • কোন ধরণের যোগাযোগ ছাড়াই বলে দেয় যোগাযোগ করা যায় নি, পণ্য ফেরত পাঠানো হয়েছে

এরকম অনেক অভিযোগ থাকলেও, একথা নিঃসন্দেহে বলা যায় অনলাইনে পণ্য কিনে ঠকেননি এই সংখ্যাটাই বেশী। যেকারণে, এখন পর্যন্ত অনলাইনে কেনাকাটার পরিমাণ বেড়েই চলেছে।

কথা না বাড়িয়ে চলুন সাইটগুলো দেখে নেই-

দারাজ অনলাইন শপিং

অনলাইন শপিং সাইট হিসেবে আমি দারাজকে ১ নম্বরে রাখতে চাই। আমি গ্রাম থেকে(জেলা শহর থেকে ২৫ কিমি দূরে) অর্ডার করে ক্যাশ অন ডেলিভারিতে দারাজের পণ্য পেয়েছি। দারাজ মল থেকে কিনলে ঠকবেন না, কারণ সেগুলো ভেরিফাইড এবং অথেনটিক দোকান।

অভিযোগঃ পণ্য দিতে দেরী করে, অনেক বিক্রেতাই কম দামে পণ্য দেয়ার নামে ক্রেতাকে ঠকায়।

দারাজ মল বা, অন্যান্য ক্রেতার কাছ থেকে যারা পণ্য কিনেছেন তাদের অভিজ্ঞতা ভালো, সিংহভাগ ক্রেতা খুশী বলেই এরা টিকে আছে।

দারাজ অফারঃ সর্বশেষ অফার সম্পর্কে এখানে চাইলে লিখে দিতে পারি। ব্ল্যাক ফ্রাইডে, ১২-১২, ১১-১১ ইত্যাদি অফার চলতে থাকে। সর্বশেষ অফার দেখার জন্য নির্ভর করবেন- দারাজ ব্লগের উপর

ওয়েবসাইটঃ 

সার্ভিসঃ ১০ এ ৭ দেবো

স্বপ্ন অনলাইন শপিং

মাছ, চকলেট, খাবার, শিশুদের বিভিন্ন জিনিসপত্র, খেলাধুলার সামগ্রীসহ নানারকম পণ্য রয়েছে স্বপ্নের স্টোরে। চট্টগ্রাম, ঢাকা এবং সিলেটে এরা হোম ডেলিভারি দেয়। ফ্রি হোম ডেলিভারির অফার চলতেই থাকে।

ওয়েবসাইটঃ 

সার্ভিসঃ ১০ এ ৭ দেবো

আজকেরডিল

আজকেরডিলে সারাদেশে ফ্রি ডেলিভারির অফার চলছে। পাওয়া যাচ্ছে- শীতের পোশাক, কম্পিউটার এক্সেসরিজ, গহনা, গ্যাজেট, কসমেটিক্স ইত্যাদি নানারকম পণ্য। এছাড়া বিকাশে পেমেন্ট দিলেও বোনাস পাওয়া যাবে।

ওয়েবসাইটঃ 

সার্ভিসঃ ১০ এ ৭ দেবো

বিডিশপ

এই ওয়েবসাইটটিকেই আমি বাংলাদেশে অ্যামাজন এর বিকল্প হওয়ার চেষ্টা করছে বলতে পারি, কারণ এই ওয়েবসাইটে এফিলিয়েট প্রগ্রাম আছে। অন্য আরো কিছু ওয়েবসাইটেও আছে, তবে এত ভালোভাবে ব্যবহার করা যায় না।

এখানে সব ধরণের পণ্যই পাবেন- ইউটিউব গিয়ার, মোবাইল এবং কম্পিউটার এক্সেসরিজ, হেলথ প্রডাক্ট, পোশাক ইত্যাদি পাওয়া যায়। এছাড়া যেকোণ পণ্যের জন্য প্রি অর্ডার করার অপশনও রয়েছে।

(ওদের একটি পাওয়ার ব্যাংক আমার ভালো লেগেছে, যা রাউটার এর সাথে ব্যবহার করা যায়)

ওয়েবসাইটঃ

সার্ভিসঃ ১০ এ ৭ দেবো

রকমারি ডট কম

বই কেনার ওয়েবসাইট হিসেবে রকমারি ডট কমের নাম কে না জানে। দীর্ঘদিন ধরে তারা বিশ্বস্ততার সাথে বই বিক্রি করছে। অভিযোগ-

  • বাজারের চেয়ে বেশী দাম রাখে
  • সময়মত ডেলিভারি দিতে পারে না

সন্তুষ্টি প্রকাশঃ অনেক ক্রেতা আছেন যারা তাদের সার্ভিসে পুরোপুরি সন্তুষ্ট। বাড়ি বসে একটু বেশী দামে বা, বাজারের দামে কোন বই পাওয়া গেলে মন্দ কি? ঢাকার বাইরে দেরীতে পণ্য দেরীতে আসে, এতেও অনেকেরই কোন সমস্যা নেই।

ওয়েবসাইটঃ https://rokomari.com/book

সার্ভিসঃ ১০ এ ৮ দেবো

শিশু পণ্য অনলাইন সাইট

উপরে যে সাইটগুলোর ঠিকানা দিয়েছি এর মাঝে রকমারি ছাড়া বাকি সবগুলোতেই আশা করা যায় শিশু পণ্য খুঁজে পাবেন। এর বাইরেও কিছু সাইট আছে যেখানে খুব ভালো মাণের শিশুপণ্য পাওয়া যায়। এই দুঃসময়ে বাচ্চাদের জন্য ফেস মাস্ক কিনে দিতে পারেন– বাচ্চাদের ফেস মাস্ক

কয়েকটি ওয়েবসাইটের লিস্ট তৈরি করেছি। এই লিস্ট আপনাদের উপকারে আসতে পারে। চলুন এরকম কিছু সাইট দেখে নেই-

এই সাইটগুলোতে পাবেন। এছাড়া আরো সাইট থাকতে পারে। আমরা পরে সেগুলোও যোগ করে দেবো। আপনারা কমেন্ট করে আপনাদের অভিজ্ঞতার কথা জানান, আপনারা চাইলে রেটিং পরিবর্তন করা হবে

আরো পড়ুন-

0

প্রবন্ধ লেখক

Author: প্রবন্ধ লেখক

বিভিন্ন বিষয়ে প্রবন্ধ লেখার চেষ্টা করছি

Related Posts

অনলাইনে কেনাকাটার সুবিধা

অনলাইনে কেনাকাটার সুবিধা এবং অসুবিধাগুলো কি কি?

এই লেখাটিতে অনলাইনে কেনাকাটার সুবিধা এবং অসুবিধা নিয়ে আপনাদেরকে জানানোর চেষ্টা করবো। আমি ধরে নিচ্ছি যে, আপনারা যারা এই লেখাটি
বই কিনুন অনলাইনে

অনলাইনে বই কেনার ওয়েবসাইট

একজন বই পড়ুয়া হিসেবে আমি অনলাইনে বই কেনার সাইট থেকে বই কিনতে পছন্দ করি। এটা সত্যি যে, বইয়ের দোকানে গিয়ে
মোবাইল ঘড়ির দাম

মোবাইল ঘড়ির দাম কত(2022)?

মোবাইল ঘড়ি বা, Sim supported Smart Watch এর দাম বিভিন্নরকম হয়। ৬০০ টাকাতেও টাচ ঘড়ি পেতে পারেন আবার ৬০০০ বা,

Leave a Reply