মহুয়ার বনে – ভাস্কর পাল

0

মহুয়ার বনে

  • ভাস্কর পাল

 

মনে পরে সেই বর্ষ পেরিয়ে আসা

গোপনে আদ্র মেঠো, অন্তরিত ভাষা

কিংবা সবুজ, হৃদয়ের সুপ্ত পিপাসা

মনে পরে সেই মহুয়া বনের কথা!

সেই দূর প্রান্তে গ্রামের শেষে

যেখানে পথ গেছে বেঁকে বেঁকে,,

শহুরে ভিড়ে হালকা লুকিয়ে পরে

ছুটে যাওয়া সেই একলা নদীর তীরে।।

 

হাজার মানুষ কোথায় যায় রোজই?

কি কি সব কাজে ব্যস্ত সবই!

আমরা বেকার, ছুটেই চলি কেবল

মহুয়ার বনে গোপনে ঘর বাধি।

সেই বনেতেই একটি বটও বৃক্ষ

তার চারিধার মহুয়া বিছানো-

মাদকতার গন্ধে মাতাল হয়ে

প্রেমিক তোমার ঝোড়ো চুলের ঘ্রাণে।।

 

তারপর যদি মেঘ ঘনিয়ে আসে

শ্রাবণ শেষেও গাছের ফাঁকে ফাঁকে,

ঝাপটা দিয়ে মহুয়া ঝরে পরে

প্রেমিক তোমার গোপন বক্ষ মাঝে।

হালকা করে দীর্ঘ ঘ্রাণের সহিত

ঝরুক পাতা প্রবল হওয়ার বেগে

শক্ত হয়ে যে যার পানে চেয়ে

মিলিয়ে যাওয়া একই রুক্ষ প্রেমে।।

 

তাহার পরেই আঁধার নেমে আসা

প্রকৃতির সেই একই ছন্দ ধরে

হাজার বছর হাজার ভাবেই কাটুক

যে যার তরে সর্বনাশী হয়ে,,

নামলে বৃষ্টি ভাসিয়ে দেওয়া দেহ

মহুয়ার ঘ্রাণে কেবল ঘ্রাণেন্দ্রিয়

ফিরে যাওয়া সেই নিজের ঠিকানায়

মহুয়ার বনে ফেরার অপেক্ষায়।।

 


আরো পড়ুন-


 


Screenshot 3
বিজ্ঞাপনঃ বই কিনুন, বই পড়ুন

0

ভাস্কর পাল

Author: ভাস্কর পাল

আমার নাম ভাস্কর পাল। জন্ম পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনা জেলার ব্যারাকপুর অঞ্চলে। ছোটো থেকে মায়ের হাত ধরে বিদ্যালয়ের পত্রিকায় কবিতা লেখা শুরু। বিভিন্ন যৌথ বই এবং পত্রিকায় অনেক কবিতা প্রকাশিত হয়েছে। তাছাড়া ২০২২ সালে নিজের একটি একক কবিতার বই 'ফুলঙ্গিনী' প্রকাশিত হয়েছে।

নিচের লেখাগুলো আপনার পছন্দ হতে পারে

ভিক্টোরিয়া পার্ক

ভিক্টোরিয়া পার্কে কি হয়? সবাই প্রেম করে, একজন আরেকজনের গলা জড়িয়ে ধরে। জড়িয়ে ধরে কি কয়? তুমি আমার হও, তুমি

কাবার ইমাম ক্ষুব্ধ

[ez-toc]কাবার ইমাম ক্ষুব্ধ মোঃ রুহুল আমিন কাবার ইমাম ক্ষুব্ধ আজি কেনো জানেন ভাই? কাবায় এসে হাজিরা সব ছবি তোলছে তাই।

স্বাধীনতার ঘ্রাণ

স্বাধীনতার ঘ্রাণ মোঃ রুহুল আমিন স্বাধীনতা এলো বাংলায় দীর্ঘ নয় মাস পর॥ নয়টি মাসে কতো মায়ের শূন্য হইলো ঘর! পাক

কবিতা রোজা আফছানা খানম অথৈ

রোজা আফছানা খানম অথৈ নীল আকাশে চাঁদ উঠেছে রোজা হবে কাল, আমরা সবাই রাখব রোজা শফথ করছি আজ। রোজা রাখব

Leave a Reply