রফিক আজাদের জীবনী

0

রফিক আজাদ ১৯৪১ সালে ফেব্রুয়ারি মাসের চৌদ্দ তারিখ টাঙ্গাইল জেলার জাহিদ গঞ্জের গুণী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

রফিক আজাদের পিতার নাম সালিম উদ্দিন খান এবং মাতার নাম রাবেয়া খান।

তিনি ১৯৫৯ সালে টাঙ্গাইলের ব্রাহ্মণশাসন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে প্রবেশিকা পান।আর ১৯৬২ সালে নেত্রকোনা কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাস করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৬৬ এবং ১৯৬৭ সালে রফিক আজাদ বাংলা সাহিত্যে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন।

কর্ম জীবনে তিনি সাংবাদিকতা,অধ্যাপনা ও সরকারি চাকরিতে নিয়োজিত ছিলেন।প্রেম, দ্রোহ ও প্রকৃতি নির্ভর কবিতার এক জগৎ সৃষ্টি করেন।

তার উল্লেখ যোগ্য কাব্য গুলো হলো ;”অসম্ভবের পায়ে”,” চুনিয়া আমার আর্কেডিয়া “,”সশস্ত্র সুন্দর “, ” হাতুড়ির নিচে জীবন “,” পরিকীর্ণ পানশালায় আমার স্বদেশ “,” অপর অরণ্যে “,” বিরিশিরি পর্ব “ইত্যাদি। সাহিত্যে  অসমান্য অবদানের জন্য তিনি আলাওল পুরষ্কার এবং বাংলা একাডেমি পুরষ্কার সহ অনেক পুরষ্কার এবং সম্মাননায় ভূষিত হন।

এই লেখক রফিক আজাদ ২০১৬ সালের ১২ই মার্চ মৃত্যুবরণ করেন।

 


আরো দেখুন-


Screenshot 3
বিজ্ঞাপনঃ বই কিনুন, বই পড়ুন

0

নিচের লেখাগুলো আপনার পছন্দ হতে পারে

ঈশ্বর আল্লা ভগবান

আল্লাহকে যদি পাইতে হয়? ইবাদত করতে হবে। সে ইবাদত কি আমরা করি? না। তাহলে? আমাদের পরিনাম জাহান্নাম।   এ জাহান্নাম

ফুল (৯)

কাল যে ফুলটি ফুটেছে আজ সে ফুলটি ফোটেনি । সে ফুলটির নাম 'সুন্দর '। সে ফুলটি তুমি আমাকে দিলে, আমি

ও আমার অনাগতা প্রিয়া

একদিন একজনকে আমি  বলেছিলাম, এই আমাকে একটি ফুল দাওতো।সে আমাকে একটি ফুল দিয়েছিল।আজ আমার ভীষণ তাকে মনে পড়ছে।মন চাচ্ছে তাকে

পড়ছে মনে মাকে

  পড়ছে মনে ভীষণ ভাবে প্রবাসে আজ মাকে, এই প্রসাবে কে আমায় বলো খোকা বলে ডাকে। মাকে ছেড়ে বাবার ছেড়ে

Leave a Reply