খোকার ঘুম

0

 

মা শোনাল গল্প কত

ঘুমের দেশের গান,

ঘুম ত নাই খোকার চোখে

কল্প লোকের বাণ।

 

ঘুটঘুটে রাত তারার ঝলক

পূর্নিমারই রাত

সবাই ঘুমায়,খোকা জেগে

মা বসে তার সাথ।

 

নিদমহলের নীল পরীরা

ঘুম নিয়েছে কেড়ে–

“চাঁদের দেশে যাব আমি

নইলে-চাঁদটা দাও পেড়ে”।

 

“ডালিম কুমার কোন দেশেতে

কোথায় বা তার ঘর”?

প্রশ্ন কত খোকার মুখে

ভাবনা অবান্তর।

 

“সেই দেশেতে যাব আমি

সবুজ ঘোড়ার পরে

মুছব তাদের চোখের জলে

আসব নিয়ে ঘরে”।

 

“দেও পরী আর দৈত্য দানব

সামনে যদি আসে

তীর ঘনুকে করব ঘায়েল

ফিরব বিজয় শেষে”।

“আকাশটাকে ঘর বানাব

রোদের রঙ মেখে,

মা ছেলেতে থাকব দুজন

ঘুম পাড়িও বুকে”।

 

“কংকাবতী, ডালিমকুমার

সবাই বন্ধু হবে–

মেঘের ঢালে খেলব মিলে

সুখে, মহোৎসবে”।

 

মা হেসে কয়- “কি সব বলিস?

এবার ঘুমাও তবে—“

“ঘুমাই যদি পঙ্খীরাজে

উড়াল দিব কবে”?

 

“সাত সাগরের ওপার যাব

কি আছে ঐ খানে?

তোমায় নেব, খুঁজব দু’জন

অজানা গুপ্তধনে”।

 

ক্লান্তি নামে মায়ের চোখে

ঘুমাল এবার খোকা

গভীর হল রাতের আঁধার

মা জেগে রয় একা।

 

আরো পড়ুন-

0
(Visited 145 times, 1 visits today)

MD MOINUL ISLAM

Author: MD MOINUL ISLAM

আরো লেখা খুঁজুন

আপনার সক্রিয়তা পয়েন্টঃ

Related Posts

শান্তি

অনেক আগে লীগ অব নেশনস্ দূর করতে চেয়েছিলো টেনশান। কিন্তু, তারপরেও দেখেছিলো বিশ্ব জাপানের হিরোশিমা আর নাগাসাকির দৃশ্য। তারপর ১৯৪৫

আমায় মোনাজাতে রাখিয়

  চলার পথে অনেকেই হারিয়েছি বলার মতন নয় জানি না কোনদিন তাদের মত হারিয়ে যাব পার যুদি মোনাজাতে আমায় সরণ

একুশ আমার খুশি

একুশ আমার খুশি একশে দিন ভাষার মাসে ছন্দ জাগে বাংলা ভাষা অতি মিষ্টি কী যে করুণ লোহু সৃষ্টি শ্রদ্ধা মেখে

শুভ্র ভালোবাসা

মুগ্ধ দ্যুতি মনটা ঘোরে সুবাস ঝিলে সূর্য হলে জ্বলবে তুমি গাত্র হবে শীতল ভূমি ইচ্ছে হলে ঘুরতে যাব চরণ বিলে।

Leave a Reply