আবার হবে দেখা

0

লিখলাম যত গান
লিখলাম যত কবিতা
একদিন তো হারিয়ে গেলে
দিলে না তো আর দেখা,
শুধু একটি কাগজে লিখেছিলে
আবার হবে দেখা।

সেই থেকে আজ
আঠারো বছর
তোমার জন্য করছি অপেক্ষা
কত বৈশাখ গেল
কত শ্রাবন আসিলো
এত কাল পরেও
পেলাম না তোমার দেখা।

কত সৃস্তি মোনে পড়ে
ক্ষনিকের সেই জিবন চলায়
আজ আমি একা
সেই তো শ্রাবনে চলে গিয়েছিলে
লিখে রেখে ছিলে শুধু
আবার হবে দেখা।

তবে কী দিয়ে ছিলে শান্তনা
না কি বিশ্বাস করবো না
আজও কাঁদি দিবা নিশি একা
কি অভিমানে চলে গেলে
খুজে পেলাম না তারও ঠিকানা
তবে কেন লিখে ছিলে তুমি
আবার হবে দেখা ।

ক্লান্ত সেই বিকেল বেলা
মনে পড়ে কি নদীর তীরে হাজার গল্পের কথা
তুমিই তো স্বপ্ন একে দিয়েছিলে
তোমার আমার অফুরান্ত ভালোবাসার
হলো না তো তারপর আর দেখা
তবুও লিখে ছিলে
আবার হবে দেখা ।

তোমার পথ চেয়ে আছি
তুমি কি আবার এসে বলবে আমায়
যাবনা ছেড়ে আর তোমাকে রেখে একা
মনে হয়….. ?
তুমি আর ফিরে আসবে না
তাই বলে কি আর হবে না দেখা

তবুও কেন লিখে ছিলে
আবার হবে দেখা ।

আরো পড়ুন-

0

Related Posts

পেয়ারীর রায় — সুজন চন্দ্র দাস

অপরাধ করার পরও অপরাধী যতটুকু না শাস্তি পায় কাউকে সত্যিকার ভালোবেসে অধিক শাস্তি হয় পেয়ারীর রায়; মানুষ তার প্রেমেই পড়ে

ভারত মাতা- Dipankar Saha (Deep)

নমঃ নমঃ নমঃ      ভারত মাতা। তব চরণে করি     নত মাথা।। তুমি আমাদের   জন্মদাতা- এই জীবনের শক্তিদাতা।। দুঃখ
হাসপাতালের শয্যা- কবিতা

হাসপাতালের শয্যা থেকে বলছি  – সুজন চন্দ্র দাস

আমি হাসপাতালের শয্যা থেকে বলছি দিন শেষে বলি, এইতো আরো একটা দিন বেঁচে গেছি নরকের যন্ত্রণা সহ্য করে বেঁচে আছি
পঞ্চকবি, পঞ্চপান্ডব, অমিয় চক্রবর্তী, বিষ্ণু দে, বুদ্ধদেব বস্য, সুধীন্দ্রনাথ দত্ত, জীবনানন্দ দাস

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চপান্ডব এবং পঞ্চকবি

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চকবি এবং পঞ্চপান্ডব রয়েছে।  পঞ্চপান্ডব বলে পরিচিত কবিরা রবীন্দ্রনাথের জীবদ্দশায় রবীন্দ্র বলয়ের বাইরে গিয়ে কবিতা রচনা করেছিলেন। এই পাঁচজন

Leave a Reply